আহ্‌…ভালোই আছি

এ সপ্তাহের রাশিফলটা এখনো আসেনি। গত সপ্তাহেরটা আবার দেখছিলাম। কোনো অসুবিধায় পড়লে না ঘাবড়ানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছিল। অসুবিধা আর কি! লাইফটাইতো অসুবিধার আরেক নাম। যতদূর মনে পড়ে সারা সপ্তাহ নির্লিপ্ত থাকার চেষ্টা করেছি।

সপ্তাহের প্রথমেই শনিবার গিয়েছিলাম ছোটো মামার বাড়ি পেনসিলভেনিয়াতে। চায়না টাউন থেকে বাসে করে। একেবারে খালি হাতে। ফলাফল অসুবিধা। প্রথমে বৃষ্টি। ম্যানহাটানের ডাউনটাউন যেতে যেতে বৃষ্টি। বাসে যেতে যেতে স্নো। পৌঁছে দেখি পিকআপ করার জন্য মামা তখনো ৫ মিনিট দূরে। বৃষ্টি আর ঠাণ্ডা এক সাথে।

সন্ধ্যার পরে মামাতো বোন দুইটা আমার সেল ফোনে গেম খেলছিল। রাতের বেলা আর কিছু টের পাইনি। সকালে দেখি ফোনে চার্জ নেই। চার্জার নেই নি।

খেয়েদেয়ে বের হলাম চার্জ দেয়ার কোনো ব্যবস্থা করা যায় কিনা দেখতে। রবিবার। অনেক দোকানপাটই বন্ধ। রাস্তায় লোকজনও কম। কিছু দূরে গিয়ে দেখি একটা ফোনের দোকান। চার্জের ব্যবস্থা হলো।

বিকেলে ফিরে এলাম। ছোটো ভাই পিক-আপ করবে বলেছিল। কল করে দেখি তখনো ১৫ মিনিট দূরে। নিউইয়র্কে স্নো না পড়লেও বৃষ্টি চলছে।

সোমবার থেকে কাজ-কর্মে ব্যস্ত। সুবিধা-অসুবিধার কথা মাথায় থাকে না।

এখন ভাবলে সপ্তাহটা খারাপ কাটেনি। আজকের দিনটা প্রচণ্ড ঠাণ্ডা। আর কোথাও যাবো বলে মনে হয় না। কাজ শেষে সোজা বাড়ি। খেয়েদেয়ে ঘুম।

আহ্‌…মাঝে মাঝে মনটা একটু পোড়ায়…নইলে…ভালোই আছি।

Leave a Reply